কুটনৈতিকভাবে সফল তাহলে বিসিবি প্রেসিডেন্ট নাজমুল হাসান পাপন! অবশেষে ভারত আমন্ত্রণ জানাচ্ছে বাংলাদেশকে! বিসিবি সভাপতির বক্তব্যে সেটাই স্পষ্ট হলো। সব ঠিকঠাক থাকলে আগামী বছরই একটি টেস্ট খেলার জন্য ভারতে আমন্ত্রণ পেতে পারে বাংলাদেশ এবং সেই টেস্ট ম্যাচটি অনুষ্ঠিত হবে কলকাতার ইডেন গার্ডেনে।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলার পর থেকে, বিশেষ করে টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পর বিশ্বের সব ক্রিকেট পরাশক্তিই আমন্ত্রণ জানিয়েছে বাংলাদেশকে। অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকায় গিয়েও সিরিজ খেলেছে টাইগাররা। একমাত্র ব্যাতিক্রম ভারত। তাদের যুক্তি, বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানালে তাদের গ্যালারি ভরবে না। তাতে বাণিজ্যিকভাবে তারা ক্ষতির সম্মুখিন হবে। এ অজুহাতে এখনও পর্যন্ত বাংলাদেশকে আমন্ত্রণ জানানোর মত সৌজন্যতা দেখাতে পারেনি।

তবে গত অস্ট্রেলিয়া-নিউজিল্যান্ড বিশ্বকাপের পর পরিস্থিতির অনেক পরিবর্তন হয়েছে। ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের প্রতিদ্বন্দ্বীতা মাঠে এবং মাঠের বাইরে বেশ তৈরী হয়েছে। এমতাবস্থায় দু’দেশের ক্রিকেট যে মাঠে বেশ দর্শক টানতে পারবে তাতে সন্দেহ নেই। সেটা বাংলাদেশে হোক কিংবা ভারতে।

এমনই এক প্রেক্ষাপটে বুধবার নিজ কার্যালয়ে সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন। তিনি বলেন, ‘আগামী বছরই ভারতে বসতে যাচ্ছে টি২০ বিশ্বকাপের আসর। এরপরই ভারত সফরে যাবে বাংলাদেশ। সেখানে তারা একটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে এবং সেটি অনুষ্ঠিত হতে পারে ইডেন গার্ডেনেই।’

ফিউচার ট্যুর প্রোগ্রামের অধীনে এমনিতেই জুনের প্রথম সপ্তাহে ঢাকা আসার কথা রয়েছে ভারতের। তিনটি ওয়ানডে এবং একটি টেস্ট খেলার কথা রয়েছে ভারতের সাথে। কিন্তু ফিরতি সফরে যে ভারতে যেতে পারবে বাংলাদেশ সেটা এতদিন ছিল অনিশ্চিত বিষয়। তবে, নাজমুল হাসান পাপন এদিন বিষয়টা পরিস্কার করলেন। বললেন, ‘আমরা আগামী বছর কলকাতা সফর করবো। যেখানে একটি টেস্ট ম্যাচ খেলবে বাংলাদেশ এবং ম্যাচটি হবে ইডেনে। বিষয়টি মোটামুটি চূড়ান্ত।’