বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের স্পন্সর হলো মিডিয়া এজেন্সি টপ অব মাইন্ড। বিসিবির সঙ্গে ১ জুন ২০১৫ থেকে ৩০ জুন ২০১৭ পর্যন্ত টপ অফ মাইন্ডের এই চুক্তি কার্যকর থাকবে।

দুই বছরের স্পন্সরশিপের আবেদন করার জন্য বিসিবি প্রাথমিক মূল্য নির্ধারণ করে দিয়েছিল ৩০ কোটি টাকা। স্পন্সরের জন্য ছয়টি প্রতিষ্ঠান প্রস্তাবও করেছিল। ভিত্তিমূল্য থেকে প্রায় ১১ কোটি টাকা বেশি হাঁকিয়ে টাইগারদের স্পন্সর পায় টপ অব মাইন্ড।

বুধবার মিরপুর শের-ই-বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের (বিসিবি) সভাপতি নাজমুল হাসান জানান, চূড়ান্ত দরপত্রে গ্রামীণ ফোনকে হারিয়ে ৪১ কোটি ৪১ লাখ টাকায় দুই বছরের জন্য জাতীয় দলের স্পন্সর পায় টপ অব মাইন্ড।

 এদিকে, টপ অব মাইন্ড পাকিস্তান সিরিজের জন্যও স্পন্সরশিপ কিনেছিল। পরে তারা তা বিক্রি করে প্রাণ গ্রুপের কাছে।