চুল ধোয়ার আবার কী নিয়মকানুন? শ্যাম্পু দিলেই তো হলো। আপাতদৃষ্টিতে এমন মনে হলেও সঠিকভাবে চুল না ধুলে নানা রকম সমস্যা দেখা দেয়। শ্যাম্পু ব্যবহারেরও যে নিয়ম আছে, তা অনেকেরই অজানা। সেসব জানিয়ে পরামর্শ দিয়েছেন রেড বিউটি স্যালনের রূপবিশেষজ্ঞ আফরোজা কামাল।

শ্যাম্পু করার সময়
প্রথমে আপনার মাথার ত্বকের ধরন বুঝে শ্যাম্পু বাছাই করতে হবে। বাজারে নানা ব্র্যান্ডের শ্যাম্পু পাওয়া যায়। সেখান থেকে ভালো মানের এবং মেয়াদ আছে কি না, তা দেখে শ্যাম্পু কিনতে হবে। জানান আফরোজা কামাল। অনেকে চুল অল্প ভিজিয়ে সরাসরি এর গোড়ায় শ্যাম্পু ঘষতে থাকেন। এটি ঠিক নয়। এতে চুলের গোড়া নরম হয়ে যেতে পারে, আবার চুল পড়া ও খুশকির সমস্যা দেখা দিতে পারে।
সাধারণ তাপমাত্রার পানি দিয়ে শুরুতে চুল ভালোভাবে ভিজিয়ে নিতে হবে। এরপর ছোট একটি বাটিতে শ্যাম্পুর সঙ্গে সামান্য পরিমাণ পানি মেশাতে হবে। তারপর এই মিশ্রণ চুলের আগা থেকে শুরু করে গোড়া পর্যন্ত লাগাতে হবে। আঙুল দিয়ে এক মিনিটের মতো আলতো করে ঘষার পর ফেনার পরিমাণ কমে এলে পানি দিয়ে ধুয়ে ফেলতে হবে।
আফরোজা কামালের মতে, কেউ চাইলে এ সময় মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে চুল আঁচড়াতে পারেন। এতে খুশকি ও চুলের গোড়ার ময়লা সহজে পরিষ্কার করা যায়। দ্বিতীয় দফায় একইভাবে শ্যাম্পু ব্যবহার করতে হবে। তারপর ভালোভাবে পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলতে হবে। কোনোভাবেই চুলে যেন শ্যাম্পু না থাকে, সেটি খেয়াল রাখতে হবে। চুলের ভেতরে আঙুল দিয়ে বিলি কেটে পর্যাপ্ত পানির সাহায্যে তা পরিষ্কার করতে হবে। এর কোনো বিকল্প নেই। তা না হলে সমস্যা থেকে রেহাই পাওয়া অসম্ভব। এবার চুল চেপে পানি ঝরিয়ে নিন।

কন্ডিশনার ব্যবহার
শ্যাম্পু করার পর চুল মোছার আগে কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। মাথার ত্বক তৈলাক্ত হলে কিংবা যাঁদের চুল রেশমি, তাঁদের কন্ডিশনার ব্যবহার না করাই ভালো। ভেজা চুলে তেল দেওয়ার মতো করে কন্ডিশনার ব্যবহার করতে হবে। চুলের আগা থেকে শুরু করে আস্তে আস্তে পুরো চুলে লাগান কন্ডিশনার। কিন্তু চুলের গোড়ায় কোনোভাবেই কন্ডিশনার ব্যবহার করা যাবে না। এক মিনিট রেখে বেশি পানি দিয়ে চুল ধুয়ে ফেলুন। শ্যাম্পুর মতো কন্ডিশনার যেন চুলে থেকে না যায়, সে বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। কন্ডিশনার ক্রিমের মতো হলে এর সঙ্গে সামান্য পরিমাণ পানি মিশিয়ে নিতে পারেন।

তেল কখন লাগাবেন
আফরোজা কামাল জানান, সাধারণত চুলে শ্যাম্পু করার আগের রাতে তেল লাগানো ভালো। তবে কারও তেলে বিরক্তি লাগলে বা হাতে সময় না থাকলে শ্যাম্পু করার এক ঘণ্টা আগে এটি ব্যবহার করতে পারেন। সপ্তাহে অন্তত একবার চুলে তেল ব্যবহার করতে হবে। ব্যবহারের আগে তেল হালকা গরম করে নিতে পারেন। এরপর আঙুল বা তুলা দিয়ে মালিশ করতে হবে।

চুল শুকাতে হলে
চুল ধোয়ার পর তোয়ালে দিয়ে তা পেঁচিয়ে নিতে হবে। এরপর তোয়ালে দিয়ে আলতো করে চুল চেপে চেপে পানি ঝরিয়ে নিন। একটু পর চুল খুলে ফ্যান ছেড়ে মোটা দাঁতের চিরুনি দিয়ে আঁচড়ান। এতে চুল শুকিয়ে আসবে। হাতে সময় না থাকলে সপ্তাহে এক-দুবার হেয়ার ড্রায়ার দিয়ে চুল শুকাতে পারেন। কিন্তু প্রতিদিন এভাবে চুল শুকানো যাবে না। আর ভেজা চুল কখনোই বাঁধবেন না। আফরোজা কামাল বলেন, তোয়ালে বা গামছা দিয়ে চুল ঝাড়া উচিত নয়। এতে চুল ভেঙে যায়; গোড়া থেকে চুল উঠে আসে।

টিপস
বাইরে বের হলে প্রতিদিন শ্যাম্পু করুন। আর বাড়িতে থাকলে এক দিন অন্তর শ্যাম্পু করতে হবে। প্রতিদিন শ্যাম্পু করলে চুল পড়ে যাবে—এ ধারণা ঠিক নয়। পর্যাপ্ত পানি, ফল ও শাকসবজি খেতে হবে।

 

ফারিয়া সাবরিন সিথি

East West University,Dhaka