ক্রিকেট লিজেন্ড শচিন টেন্ডুলকারের পাশে মুমিনুল হক

0
247

টানা ১০ টেস্টে ৫০-এর বেশি রানের মাইলফলকে পৌঁছে টেন্ডুলকারের সঙ্গে একই অবস্থানে রয়েছেন মুমিনুল। এর আগে টানা ১০ টেস্টে ৫০-এর বেশি রানের ভাগিদার ছিলেন শুধু শচিন ও জন এ্যাডরিচ।

মঙ্গলবার পাকিস্তানের বিপক্ষে খুলনা টেস্টের প্রথম ইনিংসে এমন কৃতিত্ব দেখিয়েছেন বাংলাদেশের মুমিনুল হক সৌরভ। টেস্টে তিনি ব্যাট হাতে নিয়মিতভাবেই সৌরভ ছড়াচ্ছেন। মঙ্গলবারও এর ব্যত্যয় ঘটেনি। খুব ধীর স্থিরভাবে খেলে টেস্ট ক্রিকেটে টানা দশ ম্যাচে ৫০-এর বেশি রানের দেখা পেয়েছেন তিনি। সঙ্গে ক্যারিয়ারের অষ্টম হাফসেঞ্চুরি পেয়েছেন খুলনা টেস্টের প্রথম ইনিংসে।
জুলফিকার বাবরের বলে ডিপ মিড উইকেটে সিঙ্গেল নিয়ে মুমিনুল নতুন এই ক্লাবের সদস্য হয়েছেন। হাফসেঞ্চুরি পেতে মুমিনুল খেলেছেন ১০৮টি বল। খুলনা টেস্টের প্রথম দিন শেষ হতে এখনো ঘণ্টা খানেক বাকি। মুমিনুল ও রিয়াদ মিলে বাংলাদেশের স্কোরকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন।
অবশ্য টানা ১২ টেস্টে ৫০-এর বেশি রানের রেকর্ডও আছে। তাতে ১২ টেস্ট খেলা একজনই আছেন। তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার ক্রিকেটার এবি ডি ভিলিয়ার্স। ১১ টেস্টে এই মাইলফলকে পৌঁছান ৩ ব্যাটসম্যান। এদের মধ্যে ওয়েস্ট ইন্ডিজের স্যার ভিভ রিচার্ডস, বাকি ২ জন ভারতের গৌতম গাম্ভীর ও বীরেন্দ্র শেহবাগ। মুমিনুল ১০ টেস্টে এই মাইলফলকে পৌঁছানোর পর; এখানে সদস্য সংখ্যা এখন ৩। মুমিনুলের পাশে ভারতের লিটন মাস্টার শচিন ও ইংল্যান্ডের জন এ্যাডরিচ।
এ ছাড়া মুমিনুলের আগের ক্লাব অর্থাৎ টানা ৯ টেস্টে ৫০-এর বেশি রান করার লিস্ট অবশ্য বড়। সেখানে রয়েছেন স্যার এ্যাভারটন, জ্যাক ক্যালিস, সায়মন ক্যাটিচ, কুমারা সাঙ্গাকারা, এ্যালেক স্টুয়ার্ট ও ম্যাথু হেইডেন।
এই লিস্টে বাংলাদেশের আরও একজন ক্রিকেটার রয়েছেন। তিনি ড্যাশিং ওপেনার তামিম। তার টানা ৭ টেস্টে ৫০-এর উপরে রান রয়েছে। তামিম ইকবাল ইংল্যান্ড, নিউজিল্যান্ড ও ভারতের বিপক্ষে টেস্টে টানা ৭ ম্যাচে ৫০-এর বেশি রান করেছিলেন।
মুমিনুলের সর্বশেষ ১০ টেস্ট
ক্রমিক নং প্রতিপক্ষ প্রথম ইনিংস/দ্বিতীয় ইংনিস ভেন্যু
১ নিউজিল্যান্ড ১৮১/২২* চট্টগ্রাম
২ নিউজিল্যান্ড ৪৭/১২৬* ঢাকা
৩ শ্রীলঙ্কা ৮/৫০ ঢাকা
৪. শ্রীলঙ্কা ১৩/১০০* চট্টগ্রাম
৫. ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৫১/১২ কিংসটাউন
৬. ওয়েস্ট ইন্ডিজ ৩/৫৬ গ্রস আইলেট
৭. জিম্বাবুয়ে ৫৩/০ ঢাকা
৮. জিম্বাবুয়ে ৩৫/৫৪ খুলনা
৯. জিম্বাবুয়ে ৪৮/১৩১* চট্টগ্রাম
১০. পাকিস্তান ৫১*/* খুলনা।