এইমাত্র টি-২০ ম্যাচেও পাকিস্তানকে ৭ উইকেটে হারালো বাংলাদেশ।ওয়ানডে সিরিজ জয়ের পর টি-২০ম্যাচে পাকিস্তানকে হারিয়ে আরেক ধাপ এগিয়ে গেলো বাংলাদেশ। মাত্র ১৬ দশমিক ২ ওভারেই পাকিস্তানের দেয়া ১৪২ রানের টার্গেটে পৌছে যায় স্বাগতিকরা।

শুক্রবার পাকিস্তানের দেয়া ১৪২ রানের টার্গেটে খেলতে নেমে ৩ উইকেট হারিয়ে জয় পায় টাইগাররা। খেলার প্রথমদিকে তিনটি উইকেট হারালেও ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ এখন বাংলাদেশের হাতে। অলরাউন্ডার সাকিব ৫৭ রান ও সাব্বির ৫১ রান করে দলকে জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে দেন।

প্রথম টি-২০ ম্যাচে বাংলাদেশকে ১৪২ রানের টার্গেট দিয়েছে পাকিস্তান। মিরপুরে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৪১ রান করেছে সফরকারীরা। টাইগারদের বোলিং তোপের মুখে পাক দলের কোন ব্যাটসম্যানই ক্রিজে টিকতে পারেননি। পাক দলের পক্ষে মুক্তার সর্বোচ্চ ৩৭ হারিস সোহেল ৩০ এবং হাফিজ ২৬ রান করেছেন।

এদিকে অভিষেকে খেলতে নেমেই বাজিমাত করলেন মুস্তাফিজ। ৪ ওভার বল করে দুই উইকেট নিয়ে মাত্র ২০ রান দিয়েছেন। হার্ড হিটার আফ্রিদিকে আউট করেছেন এই বোলার।  মাত্র ১২ রান করে মুশফিকের হাতে ক্যাচ দিয়ে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান বুম বুম আফ্রিদি।

প্রথম টি-২০ ম্যাচে জেতার জন্য পাকিস্তানকে অল্প রানে আটকে রাখার চেষ্টা ছিলেন টাইগাররা।৯ ওভারে প্রথম উইকেট পায় বাংলাদেশ। পাক দলের ওপেনার শেহজাদ ১৭ রান করে মাশরাফির হাতে ক্যাচ দিয়ে আউট হন। বোলিং আক্রমণে প্রথম ওভার করেছেন অভিষিক্ত মুস্তাফিজ। প্রথমবারের মতো আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলতে নেমে দারুণ বল করেন।

 এখন ম্যাচ জেতার জন্য মাঠে নামবেন টাইগাররা।বাংলাদেশের বিপক্ষে সন্ধ্যা সাড়ে ছয়টায় মিরপুর শেরেবাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে খেলা শুরু হয়।
টি-টোয়েন্টির আগে তিনটি ওয়ানডে খেলেছে দুই দল। ওয়ানডে সিরিজে পাকিস্তানকে ৩-০ তে হোয়াইটওয়াশ করেছে বাংলাদেশ।তবে টি-২০ম্যাচে বাংলাদেশ দল পিছিয়ে।  এ যাবত দুই দল ৭টি টি-টোয়েন্টি খেলেছে। প্রতিটিতেই জয় তুলে নিয়েছে পাকিস্তান।
বাংলাদেশ দলে আজ দুজনের অভিষেক হচ্ছে। পাকিস্তানের বিপক্ষে তৃতীয় ওয়ানডের সেঞ্চুরিয়ান সৌম্য সরকার একাদশে জায়গা পেয়েছেন।