বিশ্বের সবচেয়ে ধনী আট ধনকুবেরের হাতে কুক্ষিগত হয়ে আছে ৩৬০ কোটি মানুষের সমপরিমাণ সম্পদ।

আন্তর্জাতিক দাতব্য সংস্থা অক্সফ্যাম এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়ে বিপজ্জনকভাবে সম্পদ কুক্ষিগত হওয়ার ব্যাপারে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করেছে।

সুইজারল্যান্ডের ডাভোসে বিশ্ব অর্থনৈতিক ফোরামের সপ্তাহব্যাপী সম্মেলনকে সামনে রেখে ‘এন ইকোনমি ফর নাইনটি নাইন পার্সেন্ট’ শিরোনামে প্রতিবেদনটি প্রকাশ করে অক্সফ্যাম।

প্রতিবেদনে আট ধনকুবেরের হাতে বিশ্বের দরিদ্রতম ৫০ শতাংশ মানুষের সমপরিমাণ সম্পদ কুক্ষিগত থাকার বিষয়টিকে ‘কল্পনাতীত বৈষম্য’ আখ্যা দিয়েছে অক্সফ্যাম।

সংস্থাটি এই অর্থনৈতিক বৈষম্যের অবসান ঘটাতে ‘নতুন অর্থনৈতিক মডেল’ প্রণয়নের আহ্বান জানিয়েছে।

অক্সফ্যামের প্রতিবেদন অনুযায়ী মাইক্রোসফটের প্রতিষ্ঠাতা বিল গেটস, স্পেনের ফ্যাশন প্রতিষ্ঠান জারা’র প্রধান আমানিকো ওর্তেগা, মার্কিন ব্যবসায়ী ওয়ারেন বাফেট, মেক্সিকান টেলিকম ব্যবসায়ী কার্লোস স্লিম হেলো, আমাজনের প্রতিষ্ঠাতা মালিক জেফ বেজোস, ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গ, ওরাকলের সিইও ল্যারি এলিসন এবং ব্লুমবার্গ নিউজের প্রতিষ্ঠাতা মিকায়েল ব্লুমবার্গ- এই আট ধনকুবেরের হাতে মোট ৪২৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের সমপরিমাণ সম্পদ রয়েছে। তাদের এই সম্পদ পৃথিবীর ৩৬০ কোটি মানুষের সম্পদের সমান।

সূত্র: দি গার্ডিয়ান।