বিশ্বের সবচেয়ে ছোট আকারের গাড়ি টাটা ন্যানো এখন বাংলাদেশের সড়ক মহাসড়ক দাঁপিয়ে বেড়াচ্ছে। ন্যানো গাড়ি তৈরি করেছে ভারতে শীর্ষ গাড়ি প্রস্তুতকারী প্রতিষ্ঠান টাটা। ভারতের বাজারে ন্যানোর বেশ কয়েকটি মডেল পাওয়া গেলেও বাংলাদেশে শুধুমাত্র ন্যানো টুইস্ট পাওয়া যাচ্ছে। ন্যানো টুইস্ট এ দেশে বাজারজাত করছে নিটল মটরস লিমিটেড।

 

নিটল মটরস লিমিটেডের সেলস অ্যান্ড মার্কেটিং কো-অর্ডিনেটর শাহীন বাংলামেইলকে জানান, বাংলাদেশে টাটা ন্যানো টুইস্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করা হয়েছিল ২০১৪ সালের আগস্টে। এরপর থেকে ন্যানো জনপ্রিয়তা শুরু হয়। কম দাম, আকারে ছোট এবং জ্বালানি সাশ্রয়ী হওয়ার কারণে মধ্যবিত্তের পছন্দের তালিকায় রয়েছে ন্যানো টুইস্ট। ইতোমধ্যে ন্যানো টুইস্টের শ খানেকের বেশি গাড়ি বিক্রিও হয়েছে।

গাড়িটির মূল্য ৮ লাখ ৯৯ হাজার টাকা। নগদে ক্রয়ের পাশাপাশি কিস্তিতে ন্যানো কেনার সুবিধা রয়েছে। সিটি ব্যাংক নেক্সাস কার্ড হোল্ডাররা কার্ডের মাধ্যমে ন্যানো কিনলে ১ লাখ ৯৯ হাজার টাকা ছাড় পাচ্ছেন। এছাড়া কিস্তিতে কিনতে হলে প্রথমে ডাউন পেমেন্ট দিতে হবে ২ লাখ ২৫ হাজার টাকা। এরপর তিন বছরে ২৪টি কিস্তির মাধ্যমে ২৮ হাজার টাকা করে পরিশোধ করতে হবে। ক্রেতা যদি ২৮ মাসের মধ্যে টাকা পরিশোধ করতে ব্যর্থ হন তবে তাকে কিস্তির সঙ্গে গুণতে হবে সুদ।
শাহীন জানান, দেশব্যাপী টাটার সেলস অ্যান্ড সার্ভিস সেন্টার রয়েছে। এছাড়া গাড়ির জন্য স্পেশাল সার্ভিস পয়েন্টও রয়েছে। নতুন ন্যানোর জন্য মাইলেজ অনুযায়ী থাকছে ফ্রি সার্ভিস। ন্যানোর জন্য দেশের বিভিন্ন পয়েন্টে সোল এজেন্টও রয়েছে। এসব এজেন্টদের থেকে গাড়ির কোনো সমস্যা হলে অনায়াসেই সারিয়ে নেয়া যাবে।
টাটা ন্যানো টুইস্ট হলুদ, লাল, বেগুনি, সিলভার, সাদা, কমলা, খয়েরি এবং নীল রঙে মিলছে। রঙের বাহার আর ভেতরের আরামদায়ক আসন এটিকে অন্যসব গাড়ি থেকে ভিন্নতা দিয়েছে। নগরের সরু অলিগলিতে অনায়াসেই ন্যানো টুইস্ট চলতে পারবে।
আপাতত বাংলাদেশে টাটার ন্যানো টুইস্ট পাওয়া গেলেও অচিরেই আরো কয়েকটি মডেল আনার পরিকল্পনা করছে নিটল মটরস লিমিটেড।
ন্যানো টুইস্টে স্পেশিফিকেশন:
দৈর্ঘ্য: ৩০৯৯ মিলি মিটার।
প্রস্থ: ১৪৯৫ মিলি মিটার।
উচ্চতা: ২২৩০ মিলি মিটার।
সিট: চারটি।
ফুয়েল ট্যাংক: ১৫ লিটার।
ওজন: ৭১০ কেজি।
ইঞ্জিনের ধরন: ৬২৪ সিসি, ২ সিলিন্ডার, এমপিএফআই, মাল্টিপয়েন্ট ফুয়েল ইনজেকটেক, ওয়াটার কুলড, গ্যাসেলিন ইঞ্জিন।
সর্বোচ্চ শক্তি: ৩৮ পিএস ৥ ৫৫০০+/-, আরপিএম।
ম্যাক্সিমাম টর্ক: ৫১এনএম ৥ ৪০০+/-, ৫০০ আরএমপি।
সর্বোচ্চ গতি: ১০৫ কেএমপিএইচ।
গিয়ার: ৪ ফরওয়ার্ড, ১ রিভার্স।
স্টিয়ারিং সিস্টেম: ইলেকট্রিক অ্যাসিসটেড।
ব্রেক: ডুয়েল সার্কিট, ১৮০ মিমি ডায়ামিটার ফ্রন্ট ও রিয়ার ড্রাম ব্রেক।
মাইলেজ পার লিটার: প্রতি লিটার পেট্রোলে ২৫.৩৫ কিলোমিটার।