অপহরণের ১৮দিন পর লিবিয়ায় আইএস জঙ্গিদের হাতে জিম্মি জামালপুরের হেলাল উদ্দিন অবশেষে যোগাযোগ করেছেন তার পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে।

এদিকে, হেলাল উদ্দিন তার পরিবারের সদস্যদের ফোন করেছেন- এমন খবর পেয়ে জামালপুরের মাদারগঞ্জ উপজেলার আদারভিটা ইউনিয়নের গজারিয়া গ্রামে হৈ চৈ পড়ে যায়। গ্রামবাসী হেলালের বাড়িতে ভিড় জমায়। স্ত্রী ও কন্যার সঙ্গে হেলাল চার মিনিট ধরে কথা বলেন।

ফোনে লিবিয়ায় জঙ্গিদের হাতে জিম্মি হেলাল জানান, নোয়াখালীর আনোয়ার হোসেন লিটন ছাড়াও আরেকজন বাংলাদেশি আইএস জঙ্গিদের হাতে জিম্মি রয়েছে। জিম্মি অবস্থা থেকেই তারা পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে কথা বলার সুযোগ পান।

হেলাল তার স্ত্রীকে জানান, দুই একদিনের মধ্যেই তারা জিম্মি দশা থেকে মুক্ত হবে। জঙ্গিরা তাদের ছেড়ে দেয়ার আশ্বাস দিয়েছে। তিনি আরো জানান, জঙ্গিরা তাদের ওপর কোনো রকম নির্যাতন বা খারাপ আচরণ করেনি। তবে তাদের দিনে একবেলা খাবার দেয়া হচ্ছে।

ফোনে কথা বলার পর হেলাল উদ্দিনের পরিবারে কিছুটা স্বস্তি এসেছে। তবে মুক্তি না পাওয়া পর্যন্ত ভয় বা আতঙ্ক কাটছে না তাদের।

উল্লেখ্য, ৬ মার্চ বাংলাদেশি হেলাল উদ্দিনসহ ৯ জন বিদেশি নাগরিককে অপহরণ করে জিম্মি করে আইএস।গত ৯ মার্চ ত্রিপোলীতে নিযুক্ত বাংলাদেশ দুতাবাস বিষয়টি সম্পর্কে নিশ্চিত হয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়কে জানায়। এরপর গত সোমবার গণমাধ্যমকে এ খবর জানানো হয়।