জনসংখ্যা সমস্যার মধ্যে রাজনৈতিক অস্থিরতার কারণে হিটলারের মত কারো কাছে ক্ষমতা দেয়া উচিত হবে না বলে মন্তব্য করেছেন পোপ ফ্রান্সিস। ডোনাল্ড ট্রাম্পের অভিষেক অনুষ্ঠানের পর স্প্যানিশ একটি পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথা বলেন। এ সময় তিনি আরো বলেন, আমি এখনই মার্কিন প্রেসিডেন্টকে নিয়ে কোন মন্তব্য করতে চাচ্ছি না। ভবিষ্যৎ বলে দেবে সে কেমন। এখনো তাকে যাচাই করার মত সময় আসেনি।
তবে জনসংখ্যা সমস্যা নিয়ে বেশ দুশ্চিন্তা প্রকাশ করেন পোপ। তিনি বলেন, ১৯৩০ সালের কথা মাথায় রাখা উচিত সবার। এ সময় জার্মানে জনসংখ্যা বেড়ে গিয়েছিল। আর তা থেকে সৃষ্টি হয়েছিল অর্থনৈতিক ও রাজনৈতিক সংকট। সে সময় হাহাকার শোনা যাচ্ছিল। কে এই জাতিকে রক্ষা করবে? এই প্রশ্ন তুলেছিল সাধারণ মানুষ। তখন হিটলার মঞ্চে এসে উঠেছিল এবং বলেছিল, আমি রক্ষা করব তোমাদের। জার্মানরা তখন একতরফা ভাবে তাকেই বেছে নিয়েছিল। এরপর বাকি ইতিহাস আমরা সকলেই জানি।
তিনি বলেন, আমাদের উচিত হবে না তেমন কোন রাজনৈতিক অস্থির পরিবেশ সৃষ্টি করা যার ফলে হিটলারের মত কেউ মঞ্চে উঠতে পারে।
ডোনাল্ড ট্রাম্পের বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে পোপ বলেন, আমি সময় হওয়ার আগে কোন মানুষের বিষয়ে কিছু বলা পছন্দ করি না। আমরাই দেখবে সে কিভাবে কাজ করে এবং তারপর আমি মন্তব্য করব।
উল্লেখ্য, ট্রাম্পের মেক্সিকো বর্ডারে দেয়াল তোলার বিষয়ে কথা বলার পর পোপকে কথা দিয়ে আক্রমণ করে ট্রাম্প। আর সে কারণেই ট্রাম্পের ওপর কিছুটা মনক্ষুণ্ন পোপ ফ্রান্সিস। বিবিসি।