মঙ্গলবার সন্ধ্যায় ইসির নির্বাচন পরিচালনা বিভাগ-২ এর উপ-সচিব মো. সামসুল আলম স্বাক্ষরিত একটি চিঠি সেনাবাহিনীর প্রিন্সিপাল স্টাফ অফিসারের কাছে পাঠানো হয়েছে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, সিটি নির্বাচনকে সুষ্ঠু নিরপেক্ষ ও শান্তিপূর্ণ করার জন্য ভোটগ্রহণের আগের দুইদিন, ভোট গ্রহনের দিন এবং ভোট গ্রহণের পরের দিনসহ মোট চারদিনের জন্য সেনাবাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। ভোটার এবং ভোটগ্রহণ ব্যবস্থাপনা বিষয়ে সার্বিক নিরাপত্তা নিশ্চিত করা লক্ষ্যে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পাশাপাশি সেনাবাহিনী মোতায়েনের সিদ্ধান্ত নেয় ইসি।

চিঠিতে আরো উল্লেখ করা হয়, প্রতিটি সিটি করপোরেশন নির্বাচন এলাকায় এক ব্যাটেলিয়ান করে সেনা সদস্য আগামী ২৬ এপ্রিল থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত দায়িত্ব পালন করবে। তারা মূলত স্টাইকিং ফোর্স ও রিজার্ভ ফোর্স হিসেবে দায়িত্ব পালন করবে। তারা রিটার্নিং কর্মকর্তার ডাকে পরিস্থিতি মোকাবেলা করবেন।

এছাড়া সেনাবাহিনীর প্রতিটি ব্যাটেলিয়ানের সঙ্গে একজন এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট থাকবেন বলে চিঠিতে উল্লেখ করা হয়।

প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলনে আগামী ২৮ এপ্রিল তিন সিটি নির্বাচনের জন্য ২৬ এপ্রিল থেকে ২৯ এপ্রিল পর্যন্ত সেনাবাহিনী নামানোর সিদ্ধান্ত নেয়ার কথা জানান নির্বাচন কমিশনরা শাহ নেওয়াজ।