মৌলিক অধিকার ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে

0
265

স্পিকার ও সিপিএ চেয়ারপার্সন ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে মৌলিক অধিকার নিশ্চিত ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে বর্তমান সরকার নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছে।

বাংলাদেশকে উন্নয়নের রোল মডেল উল্লেখ করে তিনি বলেন, দেশে বিশ্বমানের শিক্ষা নিশ্চিত করে অচিরেই বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের সোনার বাংলা প্রতিষ্ঠা সম্ভব হবে।

শিরীন শারমিন আজ তাঁর নির্বাচনী এলাকা পীরগঞ্জের খালাশপীর বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজ মাঠে বঙ্গমাতা পরিষদ রংপুর এর সহযোগিতায় পীরগঞ্জ উপজেলার এসএসসি পর্যায়ের কৃতি শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনা, আলোচনা সভা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় একথা বলেন।

সংসদ সচিবালয়ের আজ এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয় স্পিকার অনুষ্ঠানে বর্তমান সরকার আমলের বিভিন্ন উন্নয়ন কর্মকান্ড তুলে ধরে বলেন, এসব উন্নয়নের সুফল এখন জনগণ ভোগ করেছেন।

তিনি বলেন, তথ্য প্রযুক্তির সাথে প্রান্তিক পর্যায়ে জনগণকে সম্পৃক্ত করতে সরকার ৪ হাজার ৫শ’ টি ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার স্থাপন করেছে। এর মাধ্যমে তৃণমূল পর্যায়ে তথ্য প্রযুক্তি সেবা পৌঁছে দেয়া হয়েছে। এছাড়াও শিক্ষার্থীদের তথ্য প্রযুক্তির সাথে সম্পৃক্ত করতে প্রতিটি বিদ্যালয়ে শেখ রাসেল ডিজিটাল ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে, যা তরুণ শিক্ষার্থীদের বিশ্ব জ্ঞান ভান্ডারের সাথে সংযুক্ত করবে ।

সুপ্ত প্রতিভার বিকাশ ঘটিয়ে কঠিন অধ্যাবসায়ের মাধ্যমে প্রতিযোগিতার বিশ্বে মেধার স্বাক্ষর রাখতে শিক্ষার্থীদের প্রতি তিনি আহ্বান জানান। তিনি বলেন, মেধার কোন বিকল্প নেই। জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে ৩০ লক্ষ শহীদের প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত স্বাধীন বাংলাদেশকে অনন্য উচ্চতায় নিয়ে যেতে ছাত্র সমাজকে অগ্রণী ভূমিকা পালন করতে হবে।

ড. শিরীন শারমিন চৌধুরী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে ভিশন ২০২১ বাস্তবায়নে কাজ করছে সরকার। সরকার ইতোমধ্যে ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে উন্নত দেশে পরিণত করার লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে। সামগ্রিক পরিকল্পনায় শিক্ষাকে অগ্রাধিকার খাত হিসেবে গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। সবার জন্য মানসম্মত শিক্ষাব্যবস্থা নিশ্চিত করার লক্ষ্য নিয়ে বিভিন্ন পদক্ষেপ বাস্তবায়ন করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, বছরের প্রথম দিনে শিক্ষার্থীদের হাতে বই তুলে দেয়া, শিক্ষার্থীদের উপবৃত্তি প্রদান, মিড ডে মিল চালু করা,মেয়েদের জন্য বিনাবেতনে অধ্যায়নের সুযোগ করে দিয়েছে বর্তমান সরকার।

স্পিকার বলেন, বাংলাদেশ আজ অর্থনৈতিক সূচকে সফলভাবে এগিয়ে চলছে। মাথাপিছু আয় ১৬০৪ মার্কিন ডলার, শতকরা ৭.২৪ ভাগ প্রবৃদ্ধি, বৈদেশিক রেমিটেন্স বৃদ্ধি, নারীর ক্ষমতায়ন, নারী শিক্ষার প্রসার, মাতৃমৃত্যু ও শিশুমৃত্যু হার হ্রাস, বিধবা ভাতা, বয়স্ক ভাতা, মুক্তিযোদ্ধা সম্মানী ভাতা, তিন হাজার মেগাওয়াট থেকে পনের হাজার মেগাওয়াটে বিদ্যুত উন্নীতকরণ সৌর বিদ্যুতের প্রসার, রাস্তাঘাট পাকাকরণ, ব্রিজ ও কালভার্ট নির্মাণ, খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা অর্জনসহ সব বিষয়ে সফলতা অর্জন করে আজ বিশ্বদরবারে প্রশংসিত হয়েছে। জনগণের জীবনমান উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে শেখ হাসিনা সরকার।

অনুষ্ঠানে তিনি পীরগঞ্জ উপজেলায় এসএসসিতে উত্তীর্ণ কৃতি শিক্ষার্থীদের মধ্যে সনদ বিতরণ করেন।

এর আগে তিনি পীরগঞ্জের বাহাদুরপুর কমিউনিটি ক্লিনিক পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি সেবা গ্রহীতাদের সাথে কথা বলেন এবং গর্ভবতী মায়ের স্বাস্থ্য পরিচর্যা ও পুষ্টিমান নিশ্চিত করার প্রতি গুরুত্বারোপ করেন।

এছাড়াও তিনি রায়পুর ইউনিয়ন পরিষদ ও রায়পুর ইউনিয়ন ডিজিটাল সেন্টার পরিদর্শন করেন । শিরীন শারমিন এ সময় স্থানীয় নারীদের সাথে কুশলাদি বিনিময় করেন।

পরে তিনি পীরগঞ্জ উপজেলা পরিষদ চত্ত্বরে উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা আওয়ামী লীগের আয়োজনে এক সুধী সমাবেশে যোগ দেন এবং পীরগঞ্জ মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্স ভবন, কেন্দ্রীয় শহীদ মিনার, দু’টি বিদ্যালয়ের একডেমিক ভবনের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন সহ ২২টি ব্রিজ, কালভার্টের উদ্বোধন করেন।

এ সময় তিনি সাম্প্রতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্তদের মাঝে ঢেউটিন এবং বিশেষ চাহিদা সম্পন্ন ব্যক্তিদের মাঝে হুইল চেয়ার বিতরণ করেন। এছাড়াও ভাষা ও সাহিত্য প্রতিযোগিতায় বিজয়ী শিক্ষার্থীদের মাঝে পুরস্কার বিতরণ করেন।

খালাশপীর বঙ্গবন্ধু ডিগ্রি কলেজের অধ্যক্ষ আলহাজ্ব মোমিনুল ইসলাম রনতুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে ও মোকাররম হোসেন চৌধুরী’র সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন দিনাজপুর মাধ্যমিক ও উচ্চ শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর আহমদ হোসেন।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার কমল কুমার ঘোষের সভাপতিত্বে সুধী সমাবেশে অন্যান্যের মধ্যে রংপুর জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতিএ কে এম ছায়াদাত হোসেন বকুল, পীরগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক তাজিমুল ইসলাম শামীম বক্তব্য রাখেন।