২০০৭ সালের ১/১১ ঘটনা তদন্তে সুপ্রিম কোর্টের একজন সাবেক বিচারপতিকে দিয়ে নিরপেক্ষ তদন্ত কমিশন গঠনের দাবি জানিয়েছেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য ব্যারিস্টার মওদুদ আহমদ। তিনি বলেছেন, ওয়ান ইলেভেনের সরকারের উদ্দেশ্য ছিল বাংলাদেশকে বিরাজনীতিকরণ করা। মঈন-ফখরুদ্দিন শুধু খালেদা জিয়ার সঙ্গে নয়, বাংলাদেশের সঙ্গেও বিশ্বাস ঘাতকতা করেছে। তারা ওই দুই বছরে দেশের অর্থনীতি, সমাজব্যবস্থা এবং রাজনীতিকে ধ্বংস করেছে। এ বিষয়গুলো নিরপেক্ষভাবে তদন্তের জন্য আমি একটি বিচার বিভাগীয় তদন্ত কমিশন গঠনের দাবি জানাচ্ছি। ভবিষ্যতে বিএনপি ক্ষমতায় গেলে এ কমিশন গঠন করা হবে।
মওদুদ বলেন, বর্তমান সরকার যা করছে তা ওই সরকারের ধারাবাহিকতায় করছে। তারা বিরাজনীতিকরণের চেষ্টা করেছিল। এরাও সেই কাজ করছে। বিরোধী দল রাখতে চাচ্ছে না।
শনিবার বিএনপির স্থায়ী কমিটির আরেক সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী ড. খন্দকার মোশাররফ হোসেন রচিত ‘জরুরি আইনের সরকারের দুই বছর (২০০৭-২০০৮)’ শীর্ষক গ্রন্থের মোড়ক উম্মোচন অনুষ্ঠানের তিনি এ কথা বলেন। জাতীয় প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়।
মওদুদ বলেন, যারা অসাংবিধানিকভাবে ক্ষমতায় এসে দেশের এত ক্ষতি করলো তাদের কর্মকাণ্ড তদন্তের জন্য উচ্চ পর্যায়ের তদন্ত কমিশন করতে হবে। এই সরকার না করলে বিএনপি ক্ষমতায় গেলে এই কমিশন করবে। যারা এর সঙ্গে ছিলেন, যারা ইন্ধন যুগিয়েছে তাদের শাস্তি বাংলাদেশের মানুষ নিশ্চিত করবে।
মওদুদ আহমদ বলেন, ‘আত্মজীবনী এবং বাংলাদেশের রাজনৈতিক ইতিহাস নিয়ে তিনটি বই লিখতে গিয়ে ভীত হয়ে যাচ্ছি। আর এ কারণেই বইগুলো প্রকাশ করছি না। তবে এখন ভয় পেলেও বইগুলো অবশ্যই করবো। আমি আমার জীবদ্দশায় সেই বইগুলো প্রকাশ করবো। ইনশা-আল্লাহ।’