বিএনপির ‘নিখোঁজ’ যুগ্ম-মহাসচিব সালাহউদ্দিন আহমেদের কিছু হলে তার দায় সরকারকেই নিতে হবে বলে ক্ষমতাসীনদের হুঁশিয়ার করেছেন দলেরই আর এক যুগ্ম-মহাসচিব বরকত উল্লাহ বুলু।

রোববার এক বিবৃতিতে তিনি এ হুঁসিয়ারি দেন।

বিবৃতিতে বুলু বলেন, ২০ দলীয় জোটের মুখপাত্র হিসাবে দায়িত্বরত বিএনপি’র যুগ্ম-মহাসচিব, সাবেক প্রতিমন্ত্রী জননেতা সালাহউদ্দিন আহমেদকে রাতের অন্ধকারে রাজধানীর উত্তরা এলাকার একটি বাসা থেকে দরোজা ভেঙ্গে ঢুকে চোখ বেঁধে হাতকড়া পরিয়ে আইন-শৃংখলা বাহিনীর সদস্য পরিচয় দিয়ে ধরে নিয়ে যাবার পর পাঁচদিন অতিবাহিত হতে চলেছে। এই দীর্ঘ সময়েও তাকে ছেড়ে দেয়া কিংবা আদালতে হাজির করা হয়নি। উপরন্তু সরকার ও আইন প্রয়োগকারী সংস্থা তাকে গ্রেফতারের কথাও অস্বীকার করে চলেছে। এতে আমরা গভীরভাবে উদ্বিগ্ন।

সালাহউদ্দিনের স্ত্রীর আবেদনের প্রেক্ষিতে উচ্চ আদালত থেকে রুল জারি করা সত্বেও সরকার সম্পূর্ণ নির্বিকার বলেও অভিযোগ করা হয় বিবৃতিতে।

বিবৃতিতে বলা হয়, যতই সময় যাচ্ছে সালাহউদ্দিনের নিরাপত্তার ব্যাপারে আমাদের, তার পরিবারের ও দেশবাসীর উৎকণ্ঠা ততই বাড়ছে। কারণ এ সরকার আমলে, বিএনপি’র কেন্দ্রীয় নেতা ইলিয়াস আলী, সাবেক এমপি সাইফুল ইসলাম হিরু, বিএনপি নেতা হুমায়ন পারভেজ ও ঢাকার নির্বাচিত কমিশনার চৌধুরী আলামসহ বিরোধী দলীয় শত শত নেতা-কর্মীকে গ্রেফতারের পর অস্বীকার এবং গুম ও খুন করার ভয়ংকর নজির স্থপিত হয়েছে। আবার গ্রেফতারের কথা অস্বীকারের পর নানা রকম নাটক সাজিয়ে অনেক বিলম্বে আটক দেখানোরও অনেক উদাহরণ রয়েছে। সালাহউদ্দিনের ব্যাপারে এ সরকার কোন সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং তার ভাগ্যে কী ঘটেছে বা ঘটতে যাচ্ছে তা এখনো আমাদের অজ্ঞাত। তবে আমরা তাকে সুস্থ অবস্থায় ফিরে পেতে চাই।

বুলু

বুলু বলেন, সালাহউদ্দিনকে খালেদা জিয়া ময়লার বস্তায় ভরে পাচার করে দিয়ে থাকতে পারেন বলে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে অবাস্তব, আজগুবি ও নিষ্ঠুর পরিহাস করেছেন, তার নিন্দা জানাবার ভাষা আমাদের নেই। এমন একটি গুরুতর বিষয় নিয়ে এ ধরনের বিদ্রুপাত্মক উক্তি করে সরকার তার দায় এড়াতে পারে না। অবৈধ পন্থায় ক্ষমতাসীন হলেও শাসন-কর্তৃত্ব তাদের করায়ত্বে। কাজেই প্রতিটি নাগরিকের নিরাপত্তা নিশ্চিত করা তাদেরই দায়িত্ব।

অনতিবিলম্বে সালাহউদ্দিনকে মুক্তি দেয়ার কিংবা আদালতে হাজির করার জোর দাবি জানিয়ে বিবৃতিতে বলা হয়, পরিস্থিতির অবনতি ঘটলে উদ্ভূত অবস্থার দায়ভার এই অবৈধ খুনি সরকারকেই বহন করতে হবে। বাংলাদেশের মানুষ কখনও খুনি সরকারকে সহ্য করে না।