শুধু বাংলাদেশে নয়, সরা বিশ্বের কাছে নকিয়ার সর্বাধিক পরিচিত মডেলটির নাম ‘নকিয়া ১১০০’। দেশের যুবক-বৃদ্ধ সকলের কাছেই এই মডেলটি জনপ্রিয় হয়ে উঠেছিল টেকসই মোবাইল সেট হিসেবে। কিন্তু স্মার্টফোনের জগতে সেটটি আর স্থান করে নিতে পারেনি। অন্যদিকে নকিয়াও তার অবিশষ্ট্য মডেলগুলো দিয়ে খুব একটা সফলতা লাভ করতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত মাইক্রসফটের সঙ্গে যুক্ত হয়ে আবারও সুদিন দেখার সম্ভবনা সৃষ্টি করেছে নকিয়া। আর তাদের সবচাইতে জনপ্রিয় মডেলটিকেও তাই স্মার্টরূপে গ্রাহকদের কাছে আনার ঘোষণা দিল কোম্পানিটি।

নকিয়া পাওয়ার ইউজার নামের একটি প্রযুক্তি বিষয়ক ওয়েবসাইট সর্বপ্রথম নকিয়া ১১০০ মডেলের স্মার্টফোন হিসেবে আসার খবরটি প্রকাশ করে। এতে জানা যায়, ফোনটিতে অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেমের সর্বশেষ সংস্করণ ললিপপ ব্যবহার করা হবে। এছাড়া এতে কোয়ার্ড কোর প্রসেসর যুক্ত থাকবে।

ফোনটিতে মিডিয়াটেকের প্রসেসর ব্যবহার করা হবে। এছাড়া থাকতে পারে  ৫১২ মেগাবাইট র‍্যাম। তবে নতুন রূপে ফোনটির ডিভাইস পরিবর্তন করা হবে কিনা কিংবা কি ধরনের পরিবর্তন থাকতে পারে সে সম্পর্কে কোন তথ্য জানা যায়নি।

মাইক্রোসফট অধিগ্রহণের পর মৃতপ্রায় নকিয়া ধীরে ধীরে এগিয়ে আসছে। প্রতিষ্ঠানটির ‘নকিয়া এন১’ ট্যাবলেট তুলনামূলকভাবে সাড়া পেয়েছে ব্যবহারকারীদের কাছে।

নতুন করে স্মার্টফোন এনে বাজার দখলের চেষ্টা ও প্রচারণা পাওয়ার লক্ষে নকিয়া ১১০০ মডেলটি স্মার্টফোন রূপে নিয়ে আসা হবে বলে ধারণা করেছেন বিশ্লেষকরা। তবে নকিয়া অফিসিয়ালভাবে কোন তথ্য এখনো প্রকাশ করেনি এই সম্পর্কে।

২০০৩ সালে বাজারে আসে নকিয়া ১১০০। ফোনটি এতটা জনপ্রিয়তা পায় যে, অল্প সময়ে সারা বিশ্বে এর ব্যবহারকারীর সংখ্যা দাড়ায় ২৫ কোটি। এখনও বাংলাদেশে এই সেটটি ব্যবহৃত হচ্ছে!Nokia-N1-image