জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কর্মময় জীবনের ওপর বাংলাদেশ ও ভারত যৌথ প্রযোজনায় একটি চলচ্চিত্র নির্মাণ করবে। আজ শনিবার বিকেলে এখানে হায়দ্রবাদ হাউজে অনুষ্ঠিত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে আনুষ্ঠানিক বৈঠক শেষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এক বিবৃতিতে বলেন, আমরা যৌথ প্রযোজনায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জীবন ও কর্মের ওপর একটি চলচ্চিত্র নির্মাণে সম্মত হয়েছি। ভারতের প্রধানমন্ত্রী মোদী জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদন করে বলেন, তিনি ছিলেন ভারতের একজন অকৃত্রিম বন্ধু এবং একজন উঁচুমাপের নেতা। বাংলাদেশের এই জাতির পিতার প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শনে আমরা রাজধানী নয়াদিল্লির পার্ক স্ট্রিট সড়কটি বঙ্গবন্ধুর নামে নামকরণ করেছি। তিনি বলেন, বাংলাদেশ সৃষ্টিতে বঙ্গবন্ধুর জীবন, সংগ্রাম ও ভূমিকা ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে অনুপ্রাণিত করবে।
ভারতের প্রধানমন্ত্রী বলেন, ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তি পালন উপলক্ষে আমরা যৌথ প্রযোজনায় বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধের ওপর একটি প্রামাণ্য চিত্র নির্মাণ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। মোদী বলেন, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত জীবনী হিন্দি ভাষায় অনুবাদ করায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তিনিও সম্মানিত হয়েছেন।
বঙ্গবন্ধুর লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সফলভাবে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ায় তিনি শেখ হাসিনার প্রশংসা করেন। মোদি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে উদ্দেশ করে বলেন, আপনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে বাংলাদেশ উচ্চ প্রবৃদ্ধি ও উন্নয়নের পথে এগিয়ে যাচ্ছে। বাংলাদেশের সঙ্গে ভারতের সম্পর্কে আমরা আনন্দিত। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আমন্ত্রণে চারদিনের সরকারি সফরে গত শুক্রবার নয়াদিল্লি যান।