রাজনীতির মাঠে নক্ষত্র দূরত্বে বসবাস আওয়ামী লীগের সাবেক প্রেসিডিয়াল সদস্য আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী ও বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তবে অসুস্থতা এবার তাদেরকে নিয়ে এলো সন্নিকটে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে (বিএসএমএমইউ) পাশাপাশি দুই কেবিনে চিকিৎসা নিয়েছেন দুই নেতা। বিএসএমএমইউ হাসপাতালে স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে বিএনপির ভারপ্রাপ্ত মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীরকে বিকেল ৩টায় কাশিমপুর কারাগারে পাঠানোর আগ পর্যন্ত দুই দলের এই দুই নেতা পাশাপাশি কেবিনে অবস্থান করেন।

মঙ্গলবার সকালে গাজীপুরের কাশিমপুর কারাগারে মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়।

বিএসএমএমই’র পরিচালক বিগ্রেডিয়ার জেনারেল (অব.) আবদুল মজিদ ভূইয়ার নির্দেশে তাকে নিয়ে যাওয়া হয় কেবিন ব্লকের ৫ম তলায় ৫১১ নম্বর ভিআইপি ডিলাক্স কেবিনে। সেখানে ছয় সদস্যের মেডিকেল বোর্ড সেখানে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করেন। অধ্যাপক ডাক্তার রফিকুল ইসলামকে প্রধান করে গঠিত ওই মেডিকেল বোর্ড দীর্ঘক্ষণ মির্জা ফখরুলের সঙ্গে কথা বলেন। ফখরুল তাদেরকে মাথা ঘুরানো এবং কোমরে ব্যাথার কথা জানিয়েছেন।

এ সমস্যাগুলো শোনার পর তার জন্য কিছু পরীক্ষা-নিরীক্ষার সুপারিশ করে বোর্ড। তবে এ পরীক্ষা করার জন্য হাসপাতালে ভর্তির প্রয়োজনিয়তা না থাকায় তাকে কারাগারে ফেরত পাঠানো হয় বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

এদিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকার সময় মির্জা ফখরুলের পাশের আরেকটি ভিআইপি ডিলাক্স ৫১২ নম্বর কেবিনে আগে থেকেই পুলিশ প্রহরায় চিকিৎসা নিচ্ছিলেন ধর্মানুভূতিতে আঘাত হানার অপরাধে মন্ত্রী ও দলীয় পদ হারানো আব্দুল লতিফ সিদ্দিকী। তবে পাশাপাশি থাকলেও একে অপরের সঙ্গে দেখা হয়নি।