দু’মাস পর ফিরেছেন রাহুল গান্ধী

0
194

ভারতে বিরোধী দল কংগ্রেসের ভাইস-প্রেসিডেন্ট ও নেহরু-গান্ধী পরিবারের রাজনৈতিক উত্তরাধিকারী রাহুল গান্ধী প্রায় দীর্ঘ দুমাস কাজ থেকে বিরতি নেওয়ার পর বা ‘স্যাবাটিকাল’ কাটিয়ে গতকাল বৃহস্পতিবার আবার রাজনীতিতে ফিরে এসেছেন।

নতুন দিল্লিতে তার বাড়িতে ফেরার সময় তার ছবি তোলেন একদল সাংবাদিক। এই দুই মাস তিনি কোথায় ছিলেন, এ সম্পর্কে তিনি মুখ না খোলায় তাকে নিয়ে নানাধরনের ব্যঙ্গাত্মক মন্তব্য শোনা গেছে এবং কংগ্রেসের নেতৃত্বদানে তার যোগ্যতা নিয়ে অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন।

এই দুমাস ধরে তাঁকে প্রকাশ্যে কোথাও দেখা যায়নি। তিনি ব্যাংককে ছিলেন না কি বাহামাসে, উত্তরাখন্ডে না কি উরুগুয়েতে তা নিয়ে ভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বিস্তর জল্পনা হয়েছে, তবে নির্দিষ্টভাবে কিছুই জানা যায়নি। তাঁর দল কংগ্রেসের পক্ষ থেকে শুধু বলা হয়েছে রাহুল ‘স্যাবাটিকালে’ গিয়েছেন বা দলের কাজ থেকে সাময়িক ছুটি বা বিরতি নিয়েছেন। সেখানে তিনি ‘ইন্ট্রোস্পেকশন’ বা আত্মবীক্ষণ করবেন বলেও দলের নেতারা মন্তব্য করেছেন।

কিন্তু রাহুল গান্ধী ঠিক কোথায় গিয়েছিলেন, দলের নেতারা সে ব্যাপারে কিছুই বলতে পারেননি – এবং খুব সম্ভবত তাদের সে ব্যাপারে কোনও ধারণাও ছিল না। রাহল গান্ধী যখন ছুটিতে, তারই মধ্যে ভারতীয় পার্লামেন্টে বাজেট অধিবেশন শুরু হয়েছে – বাজেট ও রেল বাজেট পেশও হয়ে গেছে। এরপর সরকারের জমি অর্ডিন্যান্স নিয়েও সংসদের ভেতরে-বাইরে তোলপাড় চলেছে।

রাহুলের সংসদীয় কেন্দ্র আমেথিতে এর মধ্যে তার নামে ‘নিখোঁজ’ পোস্টার পড়েছে। তবে সম্প্রতি তাঁর মা ও কংগ্রেস প্রেসিডেন্ট সোনিয়া গান্ধী আমেথিতে গিয়ে আশ্বাস দিয়েছেন, তাদের এমপি রাহুল আবার শিগগিরি আমেথিবাসীর কাছে ফিরে আসবেন।

রাহুল গান্ধী উধাও হয়ে যাওয়ার এক সপ্তাহের মধ্যে এলাহাবাদ হাইকোর্টে একটি জনস্বার্থ মামলাও দায়ের হয়েছিল – একজন জনপ্রতিনিধি এভাবে বলেকয়ে নিরুদ্দেশ হয়ে যেতে পারেন কি না সেটা জানতে চেয়ে। সোশ্যাল মিডিয়াতেও রাহুল গান্ধীর উধাও হয়ে যাওয়া নিয়ে তোলপাড় হয়েছে –যদিও এর পক্ষে বিপক্ষে দুরকম মতামতই সেখানে দেখা গেছে।

রাহুল গান্ধী স্যাবাটিকাল ছুটিতে থাকাকালীন অন্তত দুবার যে ছুটির মেয়াদ বাড়িয়ে নিয়েছেন সেটা কংগ্রেসের কর্মকর্তারা ইতিমধ্যেই সংবাদমাধ্যমের কাছে স্বীকার করেছেন।

রাহুল গান্ধী ১৯শে এপ্রিল রোববার দিল্লিতে কৃষকদের যে সমাবেশ হবে তাতে ভাষণ দেবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে।