প্রতিবেশী দেশগুলোর সঙ্গে কূটনৈতিক সম্পর্ক নিয়ে টাড়াপড়েন হলেও ২০২২ সালে কাতারে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপ ফুটবল টুর্নামেন্ট আয়োজনে কোনো সমস্যা হবে না বলে মন্তব্য করেছেন ফিফার সভাপতি জিয়ান্নি ইনফান্তিনো।

রোববার সুইজারল্যান্ডের বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সাক্ষাতকারে ফেডারেশন অব ইন্টারন্যাশনাল ফুটবল এসোসিয়েশনের (ফিফা) সভাপতি বলেন, ‘বিশ্বকাপ এখনো পাঁচ বছর বাকি। আমার বিশ্বাস ওই এলাকা শান্ত হয়ে যাবে।’

মিশরে মুসলিম ব্রাদারহুড ও ফিলিস্তিনের হামাসকে সাহায্য করা এবং ইরানের সঙ্গে গভীর সম্পর্কের অভিযোগ এনে গত সোমবার সৌদি আরব ও তার মিত্ররা কাতারের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করে।

প্রথম দফায় সৌদি আরব, মিশর, সংযুক্ত আরব আমিরাত ও বাহরাইন সম্পর্ক ছিন্ন করলেও পরের দফায় লিবিয়া এবং ইয়েমেনও কাতারের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করে। এছাড়া সেনেগাল ও মালদ্বীপও কাতারের সঙ্গে সম্পর্কচ্ছেদ করেছে। আর জর্ডান সম্পর্কছিন্ন করলেও পরে তা শিথিল করে।

এ পরিস্থিতিতে কাতারের স্বাগতিক দেশ হওয়ার মর্যাদা কোনো ঝুঁকির মধ্যে আছে কিনা প্রশ্নে ইনফান্তিনো বলেন, “না। আমার জল্পনা-কল্পনা করার অভ্যাস নেই আর এখনও আমি তা করতে যাচ্ছি না।”

ফিফা পরিস্থিতির ওপর নজর রাখছে এবং কাতারের কর্তৃপক্ষের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ বজায় রেখেছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

তিনি বলেন, “ফিফার ভূমিকার বিষয়ে আমার উপলব্দি হল, সংস্থাটি ফুটবল নিয়ে কাজ করবে, ভূরাজনৈতিক বিষয় নিয়ে নয়। যদিও আমরা একটি কূটনৈতিক সংকটের মোকাবিলা করছি, কিন্তু আমার বিশ্বাস ওই অঞ্চলের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়ে যাবে।”