ইন্দোনেশিয়ান একটি রেসিপি "সাম্বাল"

0
233

ইন্দোনেশিয়ান একটি রেসিপি “সাম্বাল”। এতে শুকনো মরিচের ঝাল তো আছেই, সাথে আছে নারিকেলের দুধ, চিংড়ী শুঁটকির স্বাদ, তেঁতুলের টক, ধনেপাতা আরও কত্ত কী। নিজের ইচ্ছামত যে কোন শুঁটকি ব্যবহার করতে পারবেন আপনি, ফ্রিজে রাখতে পারবেন ১৫ দিন পর্যন্ত। অসাধারণ রেসিপিটি দিয়েছেন আতিয়া হোসেন তনী।

উপকরণ

শুকনা মরিচ ২০ টি ( আগের দিন রাতে পানিতে ভিজিয়ে রাখতে হবে )
রসুন কুচি ২ টেবিল চামচ
কাঁচামরিচ ২-৩ টি
ছোট চিংড়ি শুটকি ৩ টেবিল চামচ
লবণ ১ চা চামচ ( অথবা স্বাদমত )
চিনি ১/২ চামচ (অথবা স্বাদমত )
পেঁয়াজ মিহি কুচি দেড় টেবিল চামচ
নারিকেলের দুধ ১ টেবিল চামচ
তেতুলের মার দেড় টেবিলচামচ
ধনে পাতা (ইচ্ছে ) কুচি সামান্য .
১/২ কাপ তেল .

প্রণালী

  • -মরিচের বোটা ফেলে মাঝখানে দুই ভাগ করে বিচি ফেলে নিতে হবে ( ঝাল বেশি খেতে চাইলে না ফেললেও হয় )
  • -এরপর ব্লেন্ডারে মরিচ , রসুন কুচি , অর্ধেক চিংড়ি শুটকি এবং লবণ দিয়ে ভালো মত ব্লেন্ড করে নিতে হবে।
  • -এরপর প্যানে তেল গরম করে বাকি অর্ধেক চিংড়ি শুটকি দিয়ে মচমচে করে ভেজে উঠিয়ে নিতে হবে।
  • -এরপর ব্লেন্ড করা মরিচ দিয়ে দিতে হবে। কিছুক্ষণ ভালো মত রান্না করতে হবে। তেল উঠে ঘন হয়ে আসলে এর সাথে পানি দিয়ে আরো কিছুক্ষণ রান্না করতে হবে।
  • -নারিকেলের দুধ , তেতুল পেস্ট , ভেজে রাখা চিংড়ি , ধনে পাতা ( ইচ্ছে ) দিয়ে ভালো মত রান্না করতে হবে। তেল উঠে আসলে আর মরিচের রঙ পরিবর্তন হয়ে গেলে উঠিয়ে ছোট বাটি কিংবা জারে রাখতে হবে। .
  • -ফ্রিজে রাখলে ১৫ দিন পর্যন্ত ভালো থাকে .
  • -যে কোনো কাটা ছাড়া শুটকি দেয়া যেতে পারে স্বাদের জন্য।