ইতালির পার্বত্যাঞ্চলে ছয় দিন আগে ভয়াবহ এক তুষারধসে চাপা পড়েছিল বিলাসবহুল হোটেল রিগোপিয়ানো। তুষারধসে প্রায় এক লাখ ২০ হাজার টন ওজনের বরফ ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার বেগে নিচে নেমে আসে।

গত কয়েকদিনে উদ্ধার তৎপরতায় ২৭ জনের মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়। গতকাল সর্বশেষ এক পুরুষ ও এক নারীর মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২৯।

দুর্ঘটনার সময় হোটেলে ৪০ জন লোক ছিল। উদ্ধার তৎপরতা চালানোর সময় চার শিশুসহ ১৩ জনকে জীবিত উদ্ধার করা গিয়েছিল। উদ্ধার হওয়া ব্যক্তিদের মধ্যে দুইজন চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করে।

ইতালির প্রধানমন্ত্রী পাউলো জেনতিলনি  তুষারধসের বিষয়টি নিয়ে প্রথমে তদন্ত করার কথা বলেছিলেন। কিন্তু বুধবার পার্লামেন্টে এক বক্তৃতায় তিনি বলেন, এই বিপর্যয়ের জন্য কে দায়ী এখন সেটা খুঁজতে গিয়ে সময় নষ্ট করা ঠিক হবে না।