আবারো ২৪ ঘণ্টার হরতাল

0
228

অবরোধের পাশাপাশি বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা থেকে শুক্রবার ভোর ৬টা পর্যন্ত ২৪ ঘন্টার হরতালের ডাক দিয়েছে বিএনপির নেতৃত্বাধীন ২০ দলীয় জোট। একইসঙ্গে আগামীকাল বুধবার সারাদেশে অবরোধের সঙ্গে বিক্ষোভ সমাবেশ ও মিছিলের কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বরকত উল্লাহ বুলু এ কর্মসূচি ঘোষণা করেন। তবে সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের কারণে ঢাকা ও চট্টগ্রাম মহানগরী হরতাল কর্মসূচির আওতামুক্ত থাকবে।

বিএনপি’র অন্যতম যুগ্ম মহাসচিব সালাহ উদ্দিন আহমেদসহ ২০ দলীয় জোটের গুমকৃত সকল বিরোধী নেতা-কর্মীদের অবিলম্বে সুস্থ ও অক্ষত অবস্থায় ফেরত দান, ২০ দলীয় জোটের কারান্তরীণ শীর্ষ নেতৃবৃন্দসহ সকল পর্যায়ের নেতা-কর্মীদের মুক্তি এবং

গণগ্রেফতারসহ মামলা হামলা বন্ধ করে দেশে স্বাভাবিক অবস্থা ফিরিয়ে আনা এবং নির্দলীয় নিরপেক্ষ সরকার ব্যবস্থার অধীনে জাতীয় সংসদ নির্বাচনের দাবিতে এ কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়েছে।

বিবৃতিতে বলা হয়,  “বর্তমান অবৈধ সরকারের একগুঁয়েমি ও বাকশালী নীতির কারণে দেশের ভবিষ্যৎ কোন দিকে গড়াবে তা নিয়ে গভীর উৎকন্ঠায় দিন কাটাচ্ছে দেশের আপামর জনসাধারণ। দেশ ও বিদেশে যখন বাংলাদেশের শাসকগোষ্ঠীর অবৈধ, লুটপাট, দুর্নীতি ও রাষ্ট্রীয় সন্ত্রাসী নীতি নিয়ে উদ্বেগ ও শঙ্কা প্রকাশ করা হচ্ছে তখন সরকারের বধির মনোভাব দেশকে আরো বেশী সংকটাপন্ন করে তুলছে।

বরকত উল্লাহ বুলু বলেন,  মুক্তিযুদ্ধের চেতনার কথা আউড়িয়ে সরকার মূলত: মুক্তিযুদ্ধের চেতনার পবিত্রতাকেই নস্যাৎ করতে তৎপর। সরকারের বিভিন্ন অনৈতিক, অমানবিক ও সাংবিধানিক নীতি-আদর্শ বিবর্জিত কর্মকান্ডই দেশের মহাদুর্যোগের কারণ। ২০ দলীয় জোট এবং দেশবাসী আশা করে-সরকার আসন্ন তিন সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনকে নির্বিঘ্ন, অবাধ, সুষ্ঠু ও গ্রহণযোগ্য করতে সচেষ্ট হবে এবং নির্বাচন কমিশন নিরপেক্ষতার পরিচয় দিয়ে দেশের গণতান্ত্রিক ধারা ফিরিয়ে আনতে যথাযথ ভুমিকা পালন করবে। তার ব্যতয় ঘটলে জাতি তার অধিকার আদায়ে পথ খুঁজে নিতে বাধ্য হবে।