আগামীকাল বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা

0
193

আগামীকাল বুধবার থেকে শুরু হচ্ছে এইচএসসি ও সমমান পরীক্ষা। রাজনৈতিক অস্থিরতা ও সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনের মধ্যে এ পরীক্ষা হওয়ায় শিক্ষক, শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের মাঝে রয়েছে উদ্বেগ ও উৎকণ্ঠা।

৮টি সাধারণ শিক্ষা বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ডের অধীনে ১০ লাখ ৭৩ হাজার ৮৮৪ জন শিক্ষার্থী এইচএসসি পরীক্ষায় অংশ নেবে।

 সূত্র জানায়, মোট ২ হাজার ৪১৯টি কেন্দ্রের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হবে পরীক্ষা। দেশের বাইরে নতুন দুটিসহ মোট ৭টি কেন্দ্রে ২৪১ জন পরীক্ষার্থী অংশ নিচ্ছে। সময়সূচি অনুযায়ী, তত্ত্বীয় (লিখিত) পরীক্ষা শেষ হবে ১১ জুন। ব্যবহারিক পরীক্ষা ১৩ জুন শুরু হয়ে শেষ হবে ২২ জুন।
 সোমবার দুপুরে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে শিক্ষামন্ত্রী বলেন, ঘোষিত সময়সূচি অনুযায়ীই পরীক্ষা নেয়া হবে। তিনি হরতালের দিকে ইঙ্গিত করে বলেন, সব বাধাবিপত্তি উপেক্ষা করে পরীক্ষা নেয়া হবে। যদি কেউ ক্ষয়ক্ষতির শিকার হন, তাহলে তার দায়দায়িত্ব যারা বোমা মারবে, মানুষ খুন করবে- তাদেরই নিতে হবে।
দেশবাসীর সহযোগিতা কামনা করে মন্ত্রী আরও বলেন, সবাই সহযোগিতা করবেন, যাতে নিরাপদে পরীক্ষা নিতে পারি। আশা করি যারা হরতাল ডেকেছেন তারা তাদের তিন মাসের অভিজ্ঞতা, ব্যর্থতা ও মানুষের মনোভাব দেখে তা থেকে শিক্ষা নেবেন। অন্ততপক্ষে পরীক্ষার সময়সূচি দেখে হরতাল দেবেন।
শিক্ষামন্ত্রী আরও বলেন, প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে আমরা অত্যন্ত কঠোর। প্রশ্ন প্রণয়নসহ ছাপা, পরিবহন ও অন্যান্য কাজে জড়িতরা গোয়েন্দা নজরদারিতে আছে। কোচিং সেন্টারগুলো নজরদারির মধ্যে রয়েছে। আর পরীক্ষার সময় কেন্দ্রের আশপাশে ফটোকপির দোকান বন্ধ থাকবে। ফেসবুকও নজরদারিতে রয়েছে। এই কাজে আমাদের সবগুলো এজেন্সি তৎপর থাকবে, ধরতে পারলে কঠিন শাস্তির মুখোমুখি হতে হবে।