অনলাইনে একের পর এক বিজ্ঞাপনের ঝামেলা পোহাতে হয় না, এমন মানুষ খুঁজে পাওয়া মুশকিল। এই বিজ্ঞাপনের ঝামেলা থেকে মুক্তি দিতে ডেস্কটপ পিসির বিভিন্ন ওয়েব ব্রাউজারের জন্য সফল একটি এক্সটেনশন হিসেবে যাত্রা শুরু করে অ্যাডব্লক প্লাস। স্মার্টফোনের জন্য তারা অ্যডব্লক নামে অ্যাপ তৈরি করলেও সেটাকে গুগল প্লে স্টোর থেকে সরিয়ে দেয় গুগল। সেটা ২০১৩ সালের কথা। এর দুই বছর পর এসে অ্যাডব্লক প্লাসের নির্মাতা আইও তৈরি করেছে অ্যাডব্লক ব্রাউজার। মোবাইল ডিভাইসের জন্য তৈরি এই ওয়েব ব্রাউজারের কাজও হবে অ্যাডব্লক প্লাস এক্সটেনশনের মতোই। অর্থাত্ এই ওয়েব ব্রাউজার দিয়ে অনলাইনে ব্রাউজার করার সময় এটি নিজে থেকেই গ্রাহকের নির্দেশনা অনুযায়ী স্বয়ংক্রিয়ভাবে ব্লক করে দেবে বিভিন্ন বিজ্ঞাপন। ফলে অনাকাঙ্ক্ষিত বিজ্ঞাপনের ঝামেলা থেকে মুক্ত থাকবেন এর ব্যবহারকারীরা। নতুন এই ওয়েব ব্রাউজার প্রসঙ্গে নির্মাতা প্রতিষ্ঠান আইও জানিয়েছে, নিজেদের স্মার্টফোনে ওয়েব ব্রাউজিংয়ের সময় যাতে অনাকাঙ্ক্ষিত বিজ্ঞাপনের কাজের মনোযোগ নষ্ট না হয় তা নিশ্চিত করতেই তারা এই ব্রাউজারটি তৈরি করেছে। পাশাপাশি বিজ্ঞাপনগুলো স্বয়ংক্রিয়ভাবেই ব্লক হয়ে যাওয়াতে অনলাইন কনটেন্টের ব্যবহারও কমে যাবে ফোনে। ফলে ব্যাটারি এবং ডাটা প্যাকেজ—দুই দিকেই সাশ্রয় ঘটবে ব্যবহারকারীর। এখন পর্যন্ত ‘বেটা’ প্রিভিউ সংস্করণে রয়েছে এই ওয়েব ব্রাউজার। প্রাথমিকভাবে কেবল অ্যান্ড্রয়েডের জন্যই তৈরি করা হয়েছে এটি। তবে খুব শীঘ্রই অ্যাপলের আইফোন বা আইপ্যাডের জন্যও অ্যাডব্লক ব্রাউজার তৈরি করা হবে বলে জানিয়েছে এর নির্মাতারা। অ্যাডব্লক ব্রাউজার নাম হলেও সব ধরনের বিজ্ঞাপনকে অবশ্য ব্লক করবে না এই ব্রাউজার। পপ-আপ, প্রি-রোল ভিডিও এবং এই ধরনের বিরক্তিকর বিজ্ঞাপনগুলোকে সরাসরি ব্লক করবে ব্রাউজারটি। এ ছাড়া যেসব বিজ্ঞাপন সরাসরি বিজ্ঞাপন হিসেবে ঘোষিত হয়েই হাজির হয় কিংবা কোনো ওয়েব পেজের কনটেন্টকে ব্লক করে না, সেগুলো চলতে দেবে এই ব্রাউজার। এই ডিফল্ট সেটিংয়ের পাশাপাশি অবশ্য ব্যবহারকারী সুনির্দিষ্ট কোনো ধরনের বিজ্ঞাপনকে অনুমোদন করলে সেগুলোকেও ব্লক করবে না অ্যাডব্লক ব্রাউজার। অনলাইন বিজ্ঞাপনদাতারা অবশ্য এই ব্রাউজারের আগমনে তেমন একটা খুশি হতে পারেনি। বিজ্ঞাপনদাতাদের সুবিধার্থে বিজ্ঞাপন ব্লক করা সেবা নিষ্ক্রিয় করে দেওয়ার উপযোগী সফটওয়্যার বা অ্যাপসও তৈরি করছে কেউ কেউ। তবে উটকো বিজ্ঞাপনের ঝামেলা থেকে আইও ব্যবহারকারীদের সুরক্ষিত রাখতে প্রতিশ্রুতিবদ্ধ বলেই জানিয়েছে।