হজ নীতিতে পরিবর্তন এনেছে পাকিস্তান
হজ নীতিতে পরিবর্তন এনেছে পাকিস্তান

হজ নীতিতে পরিবর্তন এনেছে পাকিস্তান। নতুন নীতি অনুযায়ী হজে আর কোনও ভর্তুকি বা অর্থ সহায়তা দেবে না দেশটির সরকার।

সম্প্রতি পাকিস্তানের মন্ত্রিসভার এক সভায় এই সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়েছে। এতে সভাপতিত্ব করেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান।

অবশ্য পরবর্তীতে পাকিস্তানের তথ্যমন্ত্রী ফাওয়াদ চৌধুরী ইসলামাবাদে অনুষ্ঠিত এক সংবাদ সম্মেলনে জানান, হজে ভর্তুকি বিষয়ে সরকার চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেয়নি। দ্রুতই এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেয়া হবে।

গত বছরের তুলনায় এবার হজের খরচ বাড়বে। এ বছর প্রত্যেক হাজীকে অন্তত ১ লাখ পাকিস্তানি রুপি বেশি খরচ করতে হবে। সব মিলিয়ে ভর্তুকি ছাড়া দেশটির দক্ষিণাঞ্চলের হাজিদের খরচ পড়বে ৪ লাখ ৩৬ হাজার এবং উত্তরাঞ্চলের হাজিদের ৪ লাখ ২৬ হাজার পাকিস্তানি রুপি।

এজন্য দেশটির ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে প্রতি হাজিকে ৪৫ হাজার রুপি করে ভর্তুকি দেয়ার প্রস্তাব করা হয়েছিল। চলতি বছর পাকিস্তানের অন্তত ১ লাখ ৮৪ হাজার মানুষ হজ করতে যাবেন। এর মধ্যে ১ লাখ ৭ হাজার সরকারি ব্যবস্থাপনায় এবং বাকি ৭৬ হাজার যাবেন বেসরকারিভাবে।