শিক্ষা ব্যবস্থায় পরিক্ষা পদ্ধতি বাতিল করতে যাচ্ছে সিঙ্গাপুর
শিক্ষা ব্যবস্থায় পরিক্ষা পদ্ধতি বাতিল করতে যাচ্ছে সিঙ্গাপুর

শিক্ষা ব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন আনা হচ্ছে সিঙ্গাপুরে। স্কুল, কলেজ কিংবা বিশ্ববিদ্যালয়ে শিক্ষা ব্যবস্থায় পরিক্ষা পদ্ধতির মাধ্যমে একজন শিক্ষার্থীর মেধা যাচাই করা হয়। আর এর মাধ্যমে তাদেরকে সনদ দেওয়া হয়। তবে এবার সে ব্যবস্থায় ব্যাপক পরিবর্তন আনা হচ্ছে।

আগামী বছর থেকে দেশটির প্রাথমিক ও মাধ্যমিক স্কুল শিক্ষার্থীদের রিপোর্ট কার্ডে প্রথম স্থান অর্জন, নাকি সবচেয়ে কম নম্বর পেয়েছে, সে বিষয়টি আর উল্লেখ করা থাকবে না। পাশাপাশি গতানুগতিক শিক্ষা ব্যবস্থার অনেক কিছুই আগামী বছর থেকে আর রাখবে না সিঙ্গাপুর।

জানা গেছে, সিঙ্গাপুরের শিক্ষামন্ত্রী অং ইয়ে কুং নতুন এই উদ্যোগটি নিয়েছেন। তিনি আশাবাদী এই পরিবর্তনের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা বুঝতে পারবে, শেখার বিষয়টি কোনও প্রতিযোগিতা নয়। সে হিসেবে আগামী ২০১৯ সাল থেকে সিঙ্গাপুরের শিক্ষার্থীদের রিপোর্ট কার্ডে থাকবে না কোন শ্রেণি, সর্বনিম্ন ও সর্বোচ্চ নম্বর, রং দিয়ে দাগানো ফেল নম্বর, মোট নম্বর, খারাপ গ্রেড।

শুক্রবার (২৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮) দেশটির মিনিস্ট্রি অব এডুকেশন এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে, নতুন এই পরিবর্তনের মাধ্যমে তারা শিক্ষার্থীদের তুলনার বদলে পড়ার প্রতি বেশি উৎসাহিত করতে চাইছেন।

এদিকে শুধু রিপোর্ট কার্ডে নয়, প্রাথমিকে ১ম এবং ২য় শ্রেণীর সব পরীক্ষাও তুলে দেওয়া হচ্ছে।

দেশটির শিক্ষামন্ত্রী অং জানান, আমি জানি ক্লাসে প্রথম বা দ্বিতীয় হওয়া একজন শিক্ষার্থীর জন্য অর্জনের বিষয়, গর্বের ব্যাপার। কিন্তু ভালো উদ্দেশ্যে এগুলো সড়িয়ে নেওয়া হচ্ছে, যাতে করে শিক্ষাজীবনের শুরু থেকেই শিশু বুঝতে পারে, শেখার বিষয়টি কোনো প্রতিযোগিতা নয়, বরং এটি এমন একটি আত্ম-নিয়ন্ত্রণ যা জীবনের প্রতিটি ধাপের জন্য প্রয়োজন।