পাকিস্তানে ফের নিষিদ্ধ ভারতীয় টিভি চ্যানেল
পাকিস্তানে ফের নিষিদ্ধ ভারতীয় টিভি চ্যানেল

পাকিস্তানের সুপ্রিম কোর্ট দেশটিতে সকল ভারতীয় টিভি চ্যানেল নিষিদ্ধ করেছে। এই সংক্রান্ত নি¤œ আদালতের একটি রায়কে পাল্টে দিয়ে এই সিদ্ধান্ত দিয়েছে দেশটির সর্বোচ্চ আদালত। মূলত, পাকিস্তানগামী  নদীসমূহে ভারতের বাঁধ দেওয়ার প্রেক্ষিতে এই রায় দেয় আদালত। এ খবর দিয়েছে বিবিসি।
প্রধান বিচারপতি সাকিব নিসার বলেছেন, টিভি চ্যানেল নিষিদ্ধ করার সিদ্ধান্ত যৌক্তিক। পাকিস্তান বলছে, নদীর ওপর বাঁধ দেওয়াকে অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করছে ভারত। তবে ভারত তা অস্বীকার করছে।
বিবিসির খবরে বলা হয়, পাকিস্তানে ভারতের টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র বেশ জনপ্রিয়। তবে এর আগেও দুই দেশের সম্পর্কে উত্তেজনা সৃষ্টি হলেই সেগুলো নিষিদ্ধ করেছে পাকিস্তান সরকার।
প্রধান বিচারপতি নিজের রায়ে বলেন, ‘পাকিস্তানে পানি প্রবাহ সঙ্কুচিত করছে ভারত।

তাহলে তাদের চ্যানেল কেন বন্ধ করবো না আমরা?’ প্রসঙ্গত, পাকিস্তানের কৃষি জমিতে সেচের ৮০ শতাংশই সিন্ধু নদী ও এর শাখা নদীর ওপর নির্ভরশীল। এগুলোর বেশিরভাগেরই উৎস হলো হিমালয়।
পাকিস্তান প্রথম ভারতের চলচ্চিত্রের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে ১৯৬৫ সালের ইন্দো-পাকিস্তান যুদ্ধের পর। সেই নিষেধাজ্ঞা ২০০৮ সালে প্রত্যাহার করা হয়। তবে প্রায়ই এই নিষেধাজ্ঞা পুনরায় আরোপ করা হয়েছে। যেমন, ২০১৬ সালে বিতর্কিত কাশ্মীর অঞ্চলে ভারত প্রতিবাদ-বিক্ষোভ দমন করলে, প্রতিবেশী দেশের সকল টিভি ও রেডিও চ্যানেল নিষিদ্ধ করে পাকিস্তান।