বিশ্বকাপের প্রথম কোয়ার্টার ফাইনালে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ১৩৩ রানেই গুটিয়ে গেছে শ্রীলঙ্কার ইনিংস। টসে জিতে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকার বোলারদের তোপের মুখে দাঁড়াতেই পারেনি লঙ্কানরা। ৩৭.২ ওভারে মাত্র ১৩৩ রান করতেই সবকটি উইকেট হারাতে হয় তাদের।
দলীয় ৪ রানের মাথায় দুই উইকেট হারিয়ে বিপাকে পড়ে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজের দল। উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান কুশাল পেরেরা (৩) কাইল অ্যাবোটের বলে উইকেটরক্ষক কুইন্টন ডি ককের গ্লাভসবন্দি হন। স্কোর বোর্ডে এক রান যোগ হতে না হতেই অপর উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান তিলকারত্নে দিলশান (০) ডেল স্টেইনের শিকার হন। ডু প্লেসিসের হাতে ক্যাচ দিয়ে সাজঘরে ফেরেন তিনি।sa-vs-sri-lanka
এরপর কুমার সাঙ্গাকারা ও লাহিরু থিরিমান্নের ৬৫ রানে পার্টনারশিপে প্রতিরোধ গড়ার চেষ্টা করে শ্রীলঙ্কা। কিন্তু দলীয় ৬৯ রানের মাথায় ব্যক্তিগত ৪১ রান করে বিদায় নেন থিরিমান্নে। ইমরান তাহিরের কাছে কট এন্ড বোল্ড হয়ে প্যাভিলনে ফেরেন তিনি। মাহেলা জয়াবর্ধনে আউট হন দলীয় ৮১ রানের মাথায়। ব্যক্তিগত ৪ রান করে ইমরান তাহিরের বলে ডু প্লেসিসের হাতে ধরা পড়েন তিনি।
দলীয় ১১৪ রানে আউট হন অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ (১৯)। জেপি ডুমিনির বলে তিনিও ডু প্লেসিসের হাতে ধরা পড়েন। থিসারা পেরেরা শূণ্য রানেই তাহির ইমরানের তৃতীয় শিকার হন।

৩৩তম ওভারের শেষ বলে অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউসকে আউট করার পর ৩৫তম ওভারের প্রথম দুই বলে নুয়ান কুলাসেকারা ও থারিন্ডু কুশলকে ফিরিয়ে হ্যাটট্রিক করেন ডুমিনি।

বাংলাদেশ সময় বুধবার সকাল সাড়ে ৯টায় অস্ট্রেলিয়ার সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে ম্যাচটি শুরু হয়। লঙ্কান অধিনায়ক অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুস টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন।

দক্ষিণ আফ্রিকা দল: হাশিম আমলা, কুইন্টন ডি কক (উইকেটরক্ষক), ফাঁফ ডু প্লেসিস, রিলে রুশো, এবি ডি ভিলিয়ার্স (অধিনায়ক), ডেভিড মিলার, জেপি ডুমিনি, কাইল অ্যাবোট, ডেল স্টেইন, মর্নি মরকেল ও ইমরান তাহির।

শ্রীলঙ্কা দল: তিলকারত্নে দিলশান, লাহিরু থিরিমান্নে, কুমার সাঙ্গাকারা, মাহেলা জয়াবর্ধনে, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথুজ (অধিনায়ক), কুশাল পেরেরা, থিসারা পেরেরা, দুসমান্থা চামিরা, নুয়ান কুলাসেকারা, থারিন্ডু কুশল ও লাসিথ মালিঙ্গা।