স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, একটি মহল আন্দোলনের মধ্যে নাশকতা তৈরির চেষ্টা করছে। যেকোনো সময় যেকোনো কিছু ঘটে যেতে পারে। তাই প্রধানমন্ত্রী আহ্বান জানিয়েছেন আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের নিজ নিজ প্রতিষ্ঠানে ফেরত যাওয়ার। গতকাল বৃহস্পতিবার রাতে রাজধানীর ধানমন্ডিতে নিজ বাসভবনে আয়োজিত এক জরুরি সংবাদ সম্মেলনে তিনি একথা জানান। তিনি বলেন, দুই সহপাঠী হারিয়ে কোমলমতি শিক্ষার্থীরা যে প্রতিবাদ জানিয়েছে তা যৌক্তিক। কিন্তু এর ফলে সাধারণ মানুষ চরম ভোগান্তিতে পড়ছে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, পুলিশ চরম ধৈর্যের পরিচয় দিয়েছে। কিছু বলছে না। কিছু একটা হয়ে গেলে এর দায় নিরাপত্তাবাহিনী নিতে পারবে না। তাই কোমলমতি শিক্ষার্থীদের কাছে আমার অনুরোধ, ‘যথেষ্ট হয়েছে, তোমরা ক্লাসে ফিরে যাও, বাসায় ফিরে যাও। তিনি শিক্ষার্থীদের বোঝানোর জন্য মা-বাবা ও প্রতিবেশীদের প্রতিও আহবান জানান।
আসাদুজ্জান খান কামাল আরও বলেন, এসব আন্দোলনে সুবিধাবাদী বা স্বার্থান্বেষী মহলের সম্পৃক্ততা দেখা যায়। আমরা আন্দোলনের বিভিন্ন ভিডিওতে দেখেছি শিবিরের নেতাদের, বিএনপির ছাত্রদলের নেতাদেরও দেখেছি। তাদের নিজেদের মধ্যে যে কথোপকথন, তা-ও আমরা শুনেছি। শুনে আমাদের কাছে মনে হয়েছে, তারা এই কোমলমতি শিশুদের দিয়ে একধরনের অপরাধ সংঘটন করিয়ে দিতে পারে। আমরা আরও দেখেছি, স্কুলের ছাত্রদের স্কুল ড্রেস পরে আন্দোলনে সম্পৃক্ত হতে বলা হচ্ছে। ছাত্রদের খাবার দিয়ে তাদের উত্সাহ দেওয়া হচ্ছে। এই কোমলমতি ছাত্ররা তাদের সহপাঠী হারানোর বেদনায় সিক্ত হয়ে সহানুভূতি জানাচ্ছে। কিন্তু এটা ভিন্ন দিকে টার্ন নিতে পারে বলে আমরা আশঙ্কা করছি।